কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন পদ্ধতি,ফর্ম ডাউনলোড ও টাকা চেক করুন

Published By: MD 360 NEWS | Updated:
সব খবর মোবাইলে পেতে ফলো করুন গুগুল নিউজ

পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যের কৃষকদের জন্য একটি নতুন প্রকল্প চালু করেছে,যার নাম কৃষক বন্ধু প্রকল্প।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০১৯ সালের ৩০শে জানুয়ারি কৃষক ভাইদের সুবিধার্থে কৃষক বন্ধু প্রকল্প চালু করেন।কৃষক বন্ধু প্রকল্পে পুরুষ-মহিলা সকলেই আবেদন করতে পারবেন। কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করতে হয় অফলাইনে বা অনলাইনে। কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করলে প্রতি বছর ১০,০০০ টাকা করে রাজ্য সরকার সেই কৃষককে বিনামূল্যে দিয়ে থাকে।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

কৃষক বন্ধু প্রকল্পে প্রতি বছর আবেদন হয়ে থাকে।কৃষক বন্ধু প্রকল্পে একবার আবেদন করলে আর সেই আবেদন এপ্রুভ হলে পরের বছর আর আবেদন করতে হয় না কৃষকদের।একবার আবেদন করলে আর তা এপ্রুভ হলে প্রতি বছর কৃষকরা টাকা পেতে থাকে এই প্রকল্পে মাধ্যমে।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পে দুই কিস্তিতে টাকা দেওয়া হয়ে থাকে।দেখে নিচ্ছি কৃষক বন্ধু প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করবেন। এর পাশাপাশি কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করলে আপনার আবেদন এপ্রুভ হয়েছে কি না কিভাবে চেক করবেন ও কৃষক বন্ধু আইডি (Krishak Bandhu Id) কিভাবে বের করবেন।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের মাধ্যমে এছাড়াও 2 লক্ষ টাকা দেওয়া হয় সম্পূর্ন ফ্রিতে। যদি কোনো ১৮ থেকে ৬০ বছরের কৃষকের দুর্ঘটনাবশত মৃত্যু হয়ে থাকে এবং সেই কৃষকের নাম কৃষক বন্ধু প্রকল্পে নথিভুক্ত থাকে তাহলে সেই কৃষকের পরিবার এককালীন 2 লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরন পাবে রাজ্য সরকারের কাছ থেকে।এরজন্য অবশ্য আবেদন করতে হবে।সেটাও দেখে নিচ্ছি এই পোস্টের মাধ্যমে।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করলে কি কি সুবিধা পাওয়া যায়ঃ-
১) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করলে বছরে ১০,০০০ টাকা পাওয়া যায়।
২) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে ১ একর জমিতে বছরে ১০ হাজার টাকা দেওয়া হয়।
৩) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে জমির পরিমাণ ব্যতিরেকে বাৎসরিক নূন্যতম অনুদান ৪০০০ টাকা দেওয়া হয়।
৪) কৃষক বন্ধুর মৃত্যু হলে ২ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয় সেই কৃষকের পরিবারকে।
৫) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করলে বছরে উপরে ১০ হাজার টাকা আর নিচে ৪ হাজার টাকা দুই কিস্তিতে দেওয়া হয়-খরিফ মরশুমে ও রবি মরশুমে।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের আবেদন পদ্ধতি,যোগ্যতা ও ডকুমেন্টসঃ-
১) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করতে হবে অফলাইনে ফর্মের মাধ্যমে। কেননা অনলাইন এখনো চালু হয়নি কৃষকদের জন্য।
২) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করতে চাইলে অবশ্যই কৃষকদের নিজের নামে কৃষিযোগ্য জমির পরচা/ পাট্টা / বনবিভাগের পাট্টা অথবা নিবন্ধীকৃত ভাগচাষী হতে হবে।
৩) যেই গ্রাম পঞ্চায়েতে কৃষকদের বেশি জমি আছে কৃষকদের সেখানে নিবন্ধীকৃত হতে হবে।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদনের জন্য যে সমস্ত ডকুমেন্টস লাগবেঃ-

  • ১) সাম্প্রতিক চাষযোগ্য জমির পরচা / বর্গা নিবন্ধীকরণের নথী / পাট্টা / বনবিভাগের পাট্টার নথি।
    ২) ভোটার কার্ড লাগবে কৃষকের।(না থাকলে আবেদন করতে পারবেন না)
    ৩) আধার কার্ড লাগবে(না থাকলেও চলবে)
    ৪) ব্যাঙ্ক পাসবুক
    ৫) পাসপোর্ট সাইজের সাম্প্রতিক একটি ছবি
    ৬) চালু একটি মোবাইল নাম্বার।
    সমস্ত ডকুমেন্টের জেরক্স ও নির্দিষ্ট ফর্মটি ফিলাপ করে নিকটবর্তী কৃষি দপ্তর অফিসে জমা করতে হবে কিংবা দুয়ারে দুয়ারে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প চালু থাকলে সেখানেও জমা করা যাবে।
    কৃষক বন্ধু প্রকল্পের ফর্ম PDF Download Link ( Krishak Bandhu Prakalpa Form Pdf Download
  • কৃষক বন্ধু প্রকল্প নিয়ে কিছু প্রশ্ন উত্তরঃ-
  • ১) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করতে কত বয়স লাগবে?
  • উঃ- কমপক্ষে ১৮ বছর লাগবে।
    ২) কৃষক বন্ধু প্রকল্পের সুবিধা কারা কারা পাবেন?
    উঃ- নিজের নামে জমির পরচা লাগবে কিংবা নথিভুক্ত ভাগচাষী এইরূপ সমস্ত কৃষক।
    ৩) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন ফর্মের সাথে কি কি নথি জমা দিতে হবে?
    উঃ- ভোটার কার্ড, জমির পরচা, ব্যাঙ্ক পাসবুকের প্রথম পাতা, পাসপোর্ট সাইজের ফটো।
    ৪) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করার পর কি কোনো কাগজ বা রসিদ দিবে?
    উঃ- হ্যাঁ।

  • ৫) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করলে কতো টাকা পাওয়া যায়?
    উঃ- মোট ১০ হাজার টাকা।দুই কিস্তিতে সমান ভাগে।

৬) কৃষক বন্ধুর টাকা কিভাবে পাঠানো হয়?
উঃ- কৃষকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি পাঠানো হয়(DBT)।
৭) কৃষক বন্ধু প্রকল্প ফর্ম কোথাও পাওয়া যাবে?
উঃ- আবেদন ফর্ম দুয়ারে সরকার শিবিরে পাওয়া যাবে কিংবা নিকটবর্তী কৃষি দপ্তর অফিসে পাওয়া যাবে।এছাড়াও অনলাইন থেকেও ডাউনলোড করা যাবে www.matirkatha.gov.in ও www.matirkatha.net এই দুটো ওয়েবসাইট থেকে কিংবা উপরের ডাউনলোড লিংক থেকেও।
৮) কৃষক বন্ধু প্রকল্পে মৃত্যুজনিত কারণে ২ লক্ষ টাকা কিভাবে পাওয়া যাবে?
উঃ- এরজন্য নিকটবর্তী কৃষি দপ্তর অফিসে যেতে হবে,সেখান থেকে ফর্ম সংগ্রহ করে সেটিকে ফিলাপ করে ডকুমেন্টস সহকারে সেইখানেই জমা করতে হবে।আধিকারিকরা যেইভাবে ফর্ম ফিলাপ করতে বলবেন ও যে সমস্ত ডকুমেন্টসের কথা বলবেন সেইভাবেই কাজ গুলো করতে হবে।

কৃষক বন্ধু ২ লক্ষ টাকা ফর্ম ডাউনলোড লিংক(Krishak Bandhu Prakalpa Death Benefit Form Bengali Download pdf Link) 

কৃষক বন্ধু প্রকল্পে নাম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে নাকি বাতিল হয়েছে চেক করুন এইভাবে ( Krishak Bandhu Prakalpa Status Check)-
১) প্রথমে আপনাকে http://matirkatha.net/ এই ওয়েবসাইটে আসতে হবে।
২) এরপর কৃষক বন্ধু নামের ঘরটিতে ক্লিক করতে হবে।
৩) এরপর নথিভুক্ত কৃষকের তথ্য অপশনে ক্লিক করতে হবে ও পরবর্তী পেজে আসতে হবে।
৪) পরবর্তী পেজে কৃষক বন্ধুর ভোটার কার্ড নাম্বার দিয়ে সার্চ করতে হবে, তাহলেই সমস্ত তথ্য চলে আসবে।নাম রেজিস্ট্রেশন আছে কি না নাকি আবেদন বাতিল হয়েছে পাশাপাশি সেখান থেকে কৃষকের কৃষক বন্ধু আইডি নাম্বার ও পাওয়া যাবে।
সরাসরি সেই পেজে যাওয়ার জন্য নিচের লিংকে ক্লিক করুনঃ-

https://krishakbandhu.net/farmer_search

সরকারি ও বেসরকারি চাকরির আপডেট সবার আগে পেতে আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হনঃ- লিংক


 

বিঃদ্রঃ- Md 360 News পোর্টাল আপনাদেরকে সদা সর্বদা নির্ভুল খবর দিয়ে থাকে। রাজ্য বা কেন্দ্র, দেশ কিংবা বিদেশের সরকারি ও বেসরকারি চাকরির আপডেট ও খবর সবার আগে দেখুন Md 360 News পোর্টালে। তবে মনে রাখবেন, Md 360 News পোর্টাল কোনো নিয়োগকারী সংস্থা নয়। আমরা অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে তথ্য সংগ্রহ করে, তা সহজ সরল ভাষায় Md 360 News পোর্টালে আর্টিকেল আকারে তুলে ধরে থাকি। যাতে আপনারা সহজেই পশ্চিমবঙ্গের বিশ্বস্ত পোর্টালের(Md 360 News) মাধ্যমে, তা হাতের গোড়ায় পেয়ে থাকেন।
About Author