কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন মোবাইলে,ইউটিউব থেকে আয়?

Published By: MD 360 NEWS | Updated:

যদি আপনি অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার উপায় খুঁজছেন,তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য। অনলাইন থেকে সঠিক পদ্ধতিতে কাজ করলে আপনি মাসে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার বিভিন্ন পদ্ধতি রয়েছে, তবে আজকে আমরা ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় তা নিয়ে কথা বলবো। পরবর্তীতে অনলাইন থেকে ইনকাম করার অন্য উপায় জেনে নিবো।

ইউটিউব কি?

ইউটিউব হলো (YouTube) Google এর পর বিশ্বের সবচেয়ে দ্বিতীয় জনপ্রিয় অনলাইন সার্চ ইঞ্জিন।অনলাইন ভিডিও প্ল্যাটফর্ম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হলো ইউটিউব। ইউটিউবের মাধ্যমে আমরা আমাদের সমস্যার সমাধান ভিডিও আকারে পেয়ে থাকি। ইউটিউবে যারা ভিডিও বানিয়ে থাকে তাদের বলা হয় কনটেন্ট ক্রিয়েটর।

 

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন মোবাইলে? How To Create YouTube Channel Online In Mobile?

ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করা খুবই সহজ ও সরল। এরজন্য আপনার কাছে থাকতে হবে একটি স্মার্টফোন। হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল সঠিক ভাবে খুলে আপনি মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কি কি লাগে?

আপনার মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে যে, ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কত টাকা লাগবে? তাহলে এটাও জেনে রাখা ভালো যে, ইউটিউব চ্যানেল খুলতে কোনোরকম টাকা লাগবে না সম্পূর্ণ বিনামূল্যে মোবাইল ফোন দিয়ে প্রফেশনাল ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল খুলতে গেলে কি কি করতে হয়?

১) আপনার কাছে একটি স্মার্টফোন থাকলেই যথেষ্ট।
২) আপনার নিজস্ব একটি জিমেইল আইডি দরকার পরবে।
৩) আর চ্যানেল ভেরিফাই করার জন্য একটি চালু মোবাইল নাম্বার, যেখানে OTP আসবে।

 

এখন দেখে নিচ্ছি কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল মোবাইল ফোন দিয়ে খুলবেন।

১) প্রথমে আপনাকে আপনার মোবাইল ফোন এর মধ্যে থাকা ইউটিউব App টি ওপেন করুন।
২) এরপর যদি জিমেইল আইডি দিয়ে লগইন করা থাকে ভালো কথা, না থাকলে লগইন করুন।
৩) এরপর ডানদিকে উপরে থাকা লোগোতে ক্লিক করুন এবং Your Channel এ ক্লিক করুন। যদি চান যে জিমেইল আইডি পরিবর্তন করবেন তাহলে Add Account এ ক্লিক করে নতুন জিমেইল আইডি বসিয়ে লগইন করুন।
৪) এরপর Your Channel এ ক্লিক করে আপনার পছন্দের চ্যানেল নাম,লোগো ও ব্যানার বসিয়ে Save করলেই আপনার চ্যানেল তৈরি হয়ে যাবে।

ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করার সঠিক নিয়ম?

ইউটিউব চ্যানেল শুধু খুললেই হবে না। ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে গেলে আপনাকে সঠিক ভাবে সময় মতো ভিডিও আপলোড করতে হবে। তাহলেই আপনি একজন প্রতিষ্ঠিত ইউটিউবার হতে পারবেন। কিভাবে ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করবেন?

১) প্রথমে আপনাকে YouTube App টি খুলতে হবে।
২) এরপর + আইকনে ক্লিক করে Upload a Video তে ক্লিক করুন।
৩) পরবর্তী পেজে আপনার মোবাইলে থাকা আপনার ভিডিওটি সিলেক্ট করুন।
৪) এরপর Title এ ১০০ টি শব্দের মধ্যে আপনার ভিডিওটি কোন বিষয়ের ওপর বানানো হয়েছে,তা উল্লেখ করে দিন। আর ডেসক্রিপশন বক্সে আপনার ভিডিও সম্পর্কে কিছু লিখে দিন। এর পাশাপাশি ইউটিউব ভিডিও ডেসক্রিপশন বক্সে আপনি আপনার Social Media লিংক যেমন- Facebook, Instagram, Twitter ইত্যাদি দিতে পারেন।
৫) এরপর Upload এ ক্লিক করলেই আপনার ভিডিও আপলোড হওয়া শুরু হয়ে যাবে।

 

ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করার সঠিক সময়?

অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতই পারে যে, ইউটিউব ভিডিও আপলোড করার সঠিক সময় কি? তবে এক্ষেত্রে আমারা আমাদের ব্যক্তিগত মতামত শেয়ার করছি,কেননা আমাদের Already 1.20 Million Subscribers রয়েছে চ্যানেলে(Md 360)। আপনাকে প্রথমত নির্দিষ্ট একটি সময় বেছে নিতে হবে, হয়তো সকাল ৯ টা নয়তো দুপুর ২ টো কিংবা সন্ধ্যা ৬ টা। আপনি কোন সময়ে ভিডিও দিতে পারবেন সেইভাবে সময় বেছে নিন আর ভিডিও আপলোড করুন, তাহলে আপনাদের চ্যানেলের সদস্যরা সেই সময় মতো আপনার চ্যানেলে চলে আসবে ভিডিও দেখার জন্য। এর পাশাপাশি ভিডিও পাবলিশ করার আগে বিভিন্ন Social Media তে কিছু Short ভিডিও বা আপডেট জানাতে পারেন। তবে এমনটা করবেন না, আজকে সকাল ৯ টায় আগামীকাল রাত ১০ টায় এরপরের দিন সকাল ৭ টায় তাহলে ভিডিওতে ভিউস খুবই কম আসবে, যেহেতু আপনারা নতুন। পরবর্তীতে আপনি আপনার সময় পরিবর্তন করতে পারবেন।

ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়?

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায়ঃ- আপনি ইউটিউব চ্যানেল খুলে প্রতি মাসে ১ লাখ ও ইনকাম করতে পারবেন এমনকি ১০ লাখ টাকাও আয় করতে পারবেন। তবে এমনটাও হতে পারে মাসে ১০ হাজার টাকাও আয় না হতে পারে, এর পিছনে অনেক কারণ রয়েছে। ইউটিউব থেকে টাকা দেওয়া হয় Ads উপর ভিত্তি করে।আপনার ভিডিওতে কতোগুলো Ads আসলো সেই ভিত্তিতে Revenue জমা হবে আপনার Google Adsense Account এ।

 

ইউটিউব প্রতি ১০০০ ভিউতে কত টাকা দেয়?

ইউটিউব থেকে এমন কিছু বলা নেই যে আপনাকে ১০০০ ভিউতে ১ হাজার টাকা বা ১০ হাজার টাকা দেওয়া হবে। সেটা ভিত্তি করে আপনার কনটেন্ট এর উপর। যদি আপনি এমন কিছু কনটেন্ট তৈরি করলেন যা ইউটিউব মনেটাইজেশন ফ্রেন্ডলি না। ধরুন আপনি একটি লোন ভিডিও তৈরি করলেন, যেখানে উল্লেখ করলেন Instant Loan Approve App। তাহলে সেই ভিডিওতে যেই ভিউ করবে তার কাছেই লোনের Ads আসবে আর আপনার ইনকাম বাড়বে। কিন্তু আপনি যদি একটি ভিডিও তৈরি করেন, পুলিশ চোরকে কিভাবে ধরলো দেখুন, তবে এই ভিডিওতে লোনের ভিডিও এর তুলনায় ইনকাম অনেক কম আসবে, তার কারন এই রকম কোনো Ads নেই। তাই ইউটিউবে সবথেকে বেশি ইনকাম করে Tech Channel গুলো।

ইউটিউবে কত ভিউতে কত টাকা? ১ মিলিয়ন ভিউতে কত টাকা?

ইউটিউবে কত ভিউতে কত টাকা দেয় এটার সঠিক উত্তর কেউ দিতে পারবে না, তবে ১ হাজার ভিউ হলে ১-৪ ডলার এর মতো পেতে পারেন।আর যদি বলেন ১ মিলিয়ন ভিউতে কত টাকা ইউটিউব দিয়ে থাকে তাহলে ১০০ থেকে ৫০০ ডলার পেতে পারেন, তবে এটি ভিডিও এর কনটেন্ট এর উপর বেশি কম হতে পারে।

ইউটিউবে কত সাবস্ক্রাইব কত টাকা?

ইউটিউবে কত সাবস্ক্রাইব কত টাকা দেওয়া হয়। আমরা সচারাচর অনেকের মুখে শুনে থাকি যে, ইউটিউব ভিডিওতে লাইক,কমেন্ট, শেয়ার, সাবসক্রাইব করলে টাকা সেই কনটেন্ট ক্রিয়েটর পেয়ে থাকে। তবে এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। ইউটিউবে এমন কোথাও উল্লেখ নেই যে আপনাকে সাবসক্রাইবার সংখ্যা হিসাবে টাকা দেওয়া হবে।

ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশনের জন্য শর্ত কি? ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করার নিয়ম?

ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশনের জন্য শর্ত কি রয়েছে। ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে গেলে প্রথমত আপনার ইউটিউব চ্যানেল মনেটাইজেশন থাকতে হবে। এরজন্য আপনার চ্যানেলে কমপক্ষে ১০০০ সাবসক্রাইবার সংখ্যা থাকতে হবে আর ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচটাইম থাকতে হবে শেষ ৩৬৫ দিনের মধ্যে। তাহলেই আপনি মনেটাইজেশন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করার নিয়ম খুবই সহজ, আপনার চ্যানেল যখন এই শর্ত পূরণ করবে, ইউটিউব তখন আপনাকে মনেটাইজেশন ওন করার জন্য Apply লিংক দিয়ে দিবে সেখান থেকে আপনি আবেদন করতে পারবেন। যেখানে আপনার নাম,ঠিকানা, বয়স এগুলো উল্লেখ করতে হবে। এরপর Account নাম্বার দিতে হবে,যে একাউন্টে আপনি টাকা নিতে চান।

 

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার উপায়?

ইউটিউব থেকে টাকা তোলার উপায় কি রয়েছে? প্রথমত আপনার চ্যানেলে ১০০০ সাবসক্রাইবার ও ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ করতে হবে। এরপর মনেটাইজেশন এর জন্য আবেদন করতে হবে। সেখানে আপনি যে ঠিকানা উল্লেখ করেছেন, সেই ঠিকানায় একটি Adsense এর তরফ থেকে Adsense Pin আসবে, তা ভেরিফাই করতে হবে। এরপর ১০০ ডলার হলে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বসানোর অপশন চলে আসবে Adsense এ। সেখানে Bank Account নাম্বার বসিয়ে দিন এরপর প্রতি মাসের ২১ তারিখ করে সেই টাকা পাঠানো হয় ৫ দিনের মধ্যে টাকা আপনার একাউন্টে চলে আসবে।

 

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায়?

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায় অনেক রয়েছে। যদি আপনার চ্যানেলে ১০০০ সাবসক্রাইবার সংখ্যা নাও থাকে তবুও আপনি ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনি বিভিন্ন কোম্পানির পণ্য বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। Affiliate Marketing করে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়াও বিভিন্ন কোম্পানির App / Product Review ভিডিও বানিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়াও আরও অনেক উপায় রয়েছে।