ভোটার কার্ড আধার কার্ড লিংক অনলাইনে মোবাইলে

ভারতীয় ভোটার আইডি কার্ড হল ভারতের নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ইস্যু করা একটি পরিচয় নথি।১৮ বছর হলেই ভোটার কার্ড আবেদন করা যায়। ভোটার কার্ড প্রাথমিকভাবে দেশের পৌরসভা ও রাজ্যে ভোট দেওয়ার সময় ও ভারতীয় নাগরিকদের জন্য একটি পরিচয় প্রমাণ হিসাবে কাজ করে। এটি মোবাইল ফোনের সিম কার্ড কেনা বা পাসপোর্টের জন্য আবেদন করার মতো অন্যান্য উদ্দেশ্যে সাধারণ পরিচয়, ঠিকানা এবং বয়স প্রমাণ হিসাবেও কাজ করে৷

এটি স্থল বা আকাশপথে নেপাল এবং ভুটানে ভ্রমণের জন্য একটি ভ্রমণ নথি হিসেবেও কাজ করে। এটি ইলেক্টরস ফটো আইডেন্টিটি কার্ড (EPIC) নামেও পরিচিত। ১৯৯৩ সালে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের আমলে এটি প্রথম চালু হয়।

আমরা লক্ষ্য করি যে, অনেকেই একই নামে অসংখ্য ভোটার কার্ড তৈরি করে নেয়।তার কারন হলো, ভোটার কার্ডে আধার কার্ড আবেদন করার মতো হাতের ছাপ না লাগায় তা সম্ভব হয়ে উঠেছে। কিন্তু ইলেকশন কমিশন জানিয়ে দিয়েছে, আগষ্ট থেকে ভোটার কার্ডে আধার কার্ড লিংক প্রক্রিয়া শুরু হবে।

এখন আপনারা খুব সহজেই ভোটার কার্ডে আধার কার্ড লিংক করতে পারবেন। ভোটার কার্ডে আধার কার্ড লিংক না করলে আপনার ভোটার কার্ড বাতিল ও হয়ে যেতে পারে।

How To Link Voter Card With Aadhar Card Online West Bengal

1) প্রথমে আপনাকে প্লে স্টোর থেকে Voter Helpline App টি ডাউনলোড করতে হবে।
২) এরপর App টি ওপেন করুন।
৩) নিচে Explore বা উপরে থাকা মেনু বার এ ক্লিক করুন।
৪) আপনার সামনে অনেকগুলো ফর্ম চলে আসবে।
৫) এরপর আমাদের Voter Card Form 6B তে ক্লিক করতে হবে।
৬) পরবর্তী পেজে মোবাইল নাম্বার বসিয়ে দিয়ে লগইন করুন।


৭) এরপর ভোটার কার্ড নাম্বার বসিয়ে দিয়ে সার্চ করতে হবে।
৮) পরবর্তী পেজে আপনার নাম, বাবা/স্বামীর নাম ইত্যাদি চলে আসবে। নিচে আধার কার্ড নাম্বার বসিয়ে দিন, আধার কার্ড না থাকলে লিস্ট থেকে যেকোনো একটি ডকুমেন্টস সিলেক্ট করে তা আপলোড করুন ও মোবাইল নাম্বার,জায়গার নাম বসিয়ে দিয়ে সাবমিট করুন।
৯) আপনাদের কাজ হয়ে যাবে, এরপর একটি রেফারেন্স নাম্বার পেয়ে যাবেন, তা দিয়ে Status এ ক্লিক করে নাম্বার বসিয়ে তা চেক করতে পারবেন যে, ভোটার কার্ডে আধার কার্ড লিংক হয়েছে কিনা।

ভোটার কার্ডে আধার কার্ড লিংক প্রক্রিয়াঃ- সম্পূর্ণ ভিডিও দেখুন 

App Download Link:- Download

সরকারি ও বেসরকারি চাকরির আপডেট সবার আগে পেতে আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হনঃ লিংক